HI I AM TANZIM NOW I STUDYING IN PUNDRA UNIVERSITY,BOGRA,BANGLADESH ***WELCOME MY WEBSITE**.

Tuesday, June 28, 2016

FUNCTION IN C


FUNCTION IN C  

PART-01



আজকের TOPICS সি এর ফাংশন । আসলে ফাংশন কি? আমি তোমাদেরকে উদাহরনের মাধ্যেমে বুঝায় তাহলে ভালো বুঝবে…. আমরা যে ফোন গুলো USE করি তাতে দেখবে SETTING নামে অপশন আছে। মূলত এটিই একটি ফাংশন… এ setting এ প্রবেশ করলে দেখতে পারবে অনেকগুলি অপশন আছে যেমন: নেট সেটিং,কল সেটিং, ব্লুটুট সেটিং ইত্যাদি ইত্যাদি। সেটিং,কল সেটিং, ব্লুটুট সেটিং এর সম্লিলিত রুপকে আমরা ‍setting Function বলতে পারি।আবার এর একেকটি part কে আমরা ছোট ছোট function বলতে পারি।যেমন: নেট সেটিং একটি ফাংশন, কল সেটিং একটি ফাংশন ইত্যাদি।



MODULAR PROGRAMMING: কোন প্রোগ্রাম কে ছোট ছোট FUNCTION এ ভাগ করে প্রোগ্রামিং করাকে MODULAR PROGRAMMING বলে।


C তে ফাংশনকে ২ ভাগে ভাগ করা হয়েছেঃ


১. LIBRARY FUNCTION


২. USER-DEFINE FUNCTION


LIBRARY FUNCTION : তোমরা নিশ্চই ভার্সিটি অথবা স্কুল কলেজের লাইব্রেরী দেখেছো সেখানে অনেক বই গুচ্ছিত থাকে। ঠিক তেমনি LIBRARY FUNCTION এর মধ্যে অনেক গুলি ফাংশন গুচ্ছিত য়েমন: printf () একটি ফাংশন, এ ফাংশনটি #include<stdio.h> এই লাইব্রেরী ফাংশনের ভিতর গুচ্ছিত আছে। আবার clrscr() একটি ফাংশন এটি #include<conio.h> এই লাইব্রেরী ফাংশনের ভিতর গুচ্ছিত আছে। এখানে লাইব্রেরী ফাংশনগুলো হচ্ছে #include<stdio.h> এবং #include<conio.h> আশা করি তোমরা বুঝতে পেরেছো।

 


USER-DIFINE FUNCTION: USER যে ফাংশটি নিজের সুবিধার্থে তৈরী করে নিয়ে কাজ করবে তাকে আমরা বলতে পারি USER-DIFINE FUNCTION.

উদাহরণ হিসাবে আমরা নিচের প্রোগ্রামকে দেখতে পারি এখানে user নিজের সুবিধার্থে নিজের নাম দিয়ে একটি ফাংশন তৈরী করেছে।

 


এ প্রোগ্রামটি  আপাতত না বুঝে শুধু দেখো কিভাবে user ফাংশন তৈরী করেছে। এ প্রোগ্রামটি নিয়ে আমি পরের পোষ্ট এ বিস্তারিত আলোচনা করবো।

                                                                  পরবর্তী পেজ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

 

No comments:

Post a Comment